সৈয়দপুরে রং মেশানো চিপসে হুমকিতে জনস্বাস্থ্য


সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি প্রকাশের সময় : জুলাই ৩, ২০২৪, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন /
সৈয়দপুরে রং মেশানো চিপসে হুমকিতে জনস্বাস্থ্য

নীলফামারীর সৈয়দপুরে কৃত্রিম রং মেশানো চিপস তৈরির ব্যবসা জমে উঠেছে। এতে জনস্বাস্থ্য পড়েছে হুমকির মুখে।

জানা যায়, শহরের আবাসিক এলাকায় অনুমোদন ছাড়াই গড়ে উঠা এসব চিপস কারখানায় দীর্ঘদিন ধরে নোংরা পরিবেশে ক্ষতিকারক রং ও আটা-ময়দার সঙ্গে অপরিশোধিত লবণ মিশিয়ে তৈরি করছে চিপস। আর অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খোলা মাঠে রোদে শুকিয়ে প্যাকেটে ভরে সরবরাহ করছে বাজারে। শিশুরাই রঙ-বেরঙের ওইসব চিপসের প্রধান ভোক্তা।

স্থানীয়রা জানান, শহরের ২ থেকে ৩টি চিপস কারখানা বৈধ অনুমোদন থাকতে পারে। বাকি কারখানায় কখন কোথায় চিপস তৈরি করা হচ্ছে কেউ জানে না।

শহরের বাইপাস সড়ক সংলগ্ন একটি চিপস কারখানায় গিয়ে দেখা যায়, তারা বিএসটিআই এর অনুমোদন ছাড়াই খোলা আকাশের নিচে নানা রঙের চিপস রোদে শুকাচ্ছে। এর চারদিকে ধুলা-বালি পড়ছে। শ্রমিকেরা পায়ে ঠেলে কাঁচা চিপসকে উল্টিয়ে রোদে শুকাচ্ছে। ব্যবহার হচ্ছে দুর্গন্ধযুক্ত পানি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কারখানার এক কর্মচারী জানান, ৫-৬ বছর ধরে এভাবেই সেখানে চিপস তৈরি করা হচ্ছে। শহরের বাশবাড়ি টালি মসজিদ সংলগ্ন বাবু, উপজেলার বোতলাগাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ যাওয়ার পথে আরও কয়েকটি চিপস কারখানায় এভাবে ক্ষতিকারক রঙ মিশিয়ে চিপস উৎপাদন করছে।

সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ডা. নাজসমুল হুদা বলেন, ভেজাল ও ক্ষতিকারক রঙ মেশানো চিপস শিশুসহ সব বয়সীদের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এতে লিভার, কিডনি, পরিপাকে জটিল রোগ হতে পারে। বড়দের উচ্চ-রক্তচাপ, স্টোক ও আলসারের মতো রোগ হতে পারে।